আর্কাইভ  রবিবার ● ৫ ডিসেম্বর ২০২১ ● ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
আর্কাইভ   রবিবার ● ৫ ডিসেম্বর ২০২১

রংপুরে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৯ কোটি টাকা বেশি রাজস্ব আদায় - রংপুর কর অঞ্চল কমিশনার

রবিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২১, বিকাল ০৫:৫০

মমিনুল ইসলাম রিপন : রংপুর কর অঞ্চলে গত অর্থবছরে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৯ কোটি টাকা বেশি রাজস্ব আদায় হয়েছে। ২০২০-২০২১ অর্থবছরে এ অঞ্চলে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ৭৬০ কোটি টাকা। এর বিপরীতে রাজস্ব আদায় হয়েছে ৭৭৯ কোটি টাকা। এবার ৮৫০ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে সোমবার (১ নভেম্বর) থেকে মাসব্যাপী আয়কর মেলা শুরু হচ্ছে। আজ রোববার দুপুরে রংপুর কর ভবনের সভাকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান রংপুর কর অঞ্চল কমিশনার আবু হান্নান দেলওয়ার হোসেন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে কর অঞ্চল রংপুরে আয়কর রিটার্ন জমা দিয়েছেন ৮৩ হাজার ২৮৩ জন করদাতা। সেবা গ্রহণ করেছেন ২ লাখ ৪৯ হাজার ৮৪৯ জন করদাতা। আয়কর আদায় হয়েছে ২৬ কোটি ৩৪ লাখ ৪৩ হাজার ২৫৫ টাকা। মোট টিআইএনধারী করদাতার সংখ্যা ২ লাখ ৯১ হাজার ৭৩১ জন।

২০২০-২০২১ অর্থ বছরে রংপুর কর অঞ্চলে আয়কর আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৭৬০ কোটি টাকা। লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে আদায় করা হয়েছে ৭৭৯ কোটি টাকা, যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৯ কোটি টাকা বেশি।

কর কমিশনার জানান, গত বছর জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর মাসে রাজস্ব আদায় করা হয়েছে ১শ ১০ কোটি টাকা। চলতি বছর তা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১৩১ কোটি টাকা, যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২১ কোটি টাকা বেশি। কর অঞ্চল রংপুরের আওতায় প্রতিমাসে গড়ে ৫ হাজার নতুন করদাতা যোগ হচ্ছে। করদাতারা যাতে হয়রানির শিকার না হয় সে জন্য সব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। যারা করদাতাদের হয়রানি করবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

১ নভেম্বর থেকে মাসব্যাপী আয়কর রিটার্ন গ্রহণ ও কর তথ্যসেবা প্রদান মেলায় গাইবান্ধা ছাড়া বিভাগের দিনাজপুর, লালমনিরহাট, নীলফামারী, কুড়িগ্রাম, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড় জেলা ছাড়া রংপুরের বদরগঞ্জ, দিনাজপুরের পার্বতীপুর, ফুলবাড়ি, বোচাগঞ্জ, ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ, পঞ্চগড়ের দেবিগঞ্জ ও কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলায় সেবাপ্রদান চলবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত কর কমিশনার মঞ্জুর আলম, সহকারী কর কমিশনার সৈয়দ নুরুল হুদা, রংপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহাবুব রহমান হাবু, সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) সাজ্জাদ হোসেন বাপ্পী প্রমুখ।

মন্তব্য করুন


Link copied