আর্কাইভ  শনিবার ● ৪ ডিসেম্বর ২০২১ ● ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
আর্কাইভ   শনিবার ● ৪ ডিসেম্বর ২০২১

নেইমার-রাফিনিয়া জাদুতে ব্রাজিলে বিধ্বস্ত উরুগুয়ে

শুক্রবার, ১৫ অক্টোবর ২০২১, দুপুর ১০:০৩

ডেস্ক: আর্জেন্টিনা থেকে বড় হার নিয়ে ব্রাজিলে গিয়েছিল উরুগুয়ে দল। সাম্বার দেশেও বিধ্বস্ত লুইস সুয়ারেস-এদিনসন কাভানিরা। দেশের মানুষের সমালোচনায় আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসরের ইঙ্গিত দেওয়া নেইমারেই ঘায়েল উরুগুয়ে। প্যারিস সেন্ত জার্মেই ফরোয়ার্ড নিজে এক গোল করেছেন, আরও তিনটি করিয়েছেন। যার দুটি রাফিনিয়াকে দিয়ে। তাদের যুগলবন্দিতে লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে সেলেসাওরা ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে উরুগুয়েকে।

আজ (শুক্রবার) ভোরে মানায়াসের অ্যারেনা দা অ্যামাজোনিয়ায় আক্ষরিক অর্থেই উরুগুয়েকে নিয়ে খেলেছে ব্রাজিল। নেইমারের গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর রাফিনিয়ার জোড়ায় ৩-০ গোলের লিড পায় স্বাগতিকরা। শেষ দিকে স্কোরশিটে নাম তোলেন গাব্রিয়েল বারবোসা। তার আগে সুয়ারেসের লক্ষ্যভেদে এক গোল শোধ দিলে সফরকারীদের ব্যবধান যা একটু কমে। এই জয়ে ১১ ম্যাচে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা ব্রাজিল ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের মূল পর্বের আরও কাছে চলে গেলো। সব ঠিক থাকলে আগামী মাসেই নিশ্চিত হয়ে যেতে পারে বিশ্বকাপের মূল পর্ব। অন্যদিকে ১২ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে নেমে গেছে উরুগুয়ে।

দিন দুয়েক আগে নেইমার এক ডকুমেন্টরিতে জানিয়েছেন, ২০২২ সালে কাতার দিয়েই হতে পারে তার শেষ বিশ্বকাপ। ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের পারফরম্যান্স নিয়ে ব্রাজিলিয়ানদের সমালোচনার শেষ নেই। কঠিন পরিস্থিতিতে তার জাতীয় দল সতীর্থরা পাশে দাঁড়িয়েছেন। উরুগুয়ে ম্যাচ দিয়ে নিন্দুকদের জবাবটাও দারুণভাবে দিলেন সাবেক বার্সেলোনা তারকা। জাদুময় ফুটবলে শুরুতে দলকে এগিয়ে নেওয়ার পর বাকি ৩ গোলেও রেখেছেন অবদান। অর্থাৎ, উরুগুয়ের বিপক্ষে পাওয়া ব্রাজিলের ৪ গোলেই ছোঁয়া আছে নেইমারের।

হাইভোল্টেজ ম্যাচের মাত্র দশম মিনিটে ব্রাজিলকে এগিয়ে নেন নেইমার। ফ্রেদের বাড়ানো থ্রো বল বক্সের ভেতর নিয়ন্ত্রণে নিয়ে সফরকারী গোলকিপার ফের্নান্দো মুসলেরাকে কাটিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন। পোস্টের সামনে উরুগুয়ের এক ডিফেন্ডার থাকলেও বল তার পায়ের মাঝখান দিয়ে জড়িয়ে যায় জালে।

ব্রাজিলের গোল উৎসব কিন্তু থামেনি। ১৮ মিনিটে স্বাগতিকরা ব্যবধান দ্বিগুণ করে রাফিনিয়া জাল খুঁজে পেলে। এই গোলেও আছে নেইমারের ছোঁয়া। পিএসজি ফরোয়ার্ডের নেওয়া শট মুসলেরা ঠেকালেও গ্লাভসে নিতে পারেননি, ছুটে আসা বল আলতো টোকায় জালে জড়িয়ে প্রথম গোল পান রাফিনিয়া। বিরতি থেকে ঘুরে এসে আবারও স্কোরশিটে নাম তোলেন লিডস ইউনাইটেডের অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার। অ্যাসিস্টের ভূমিকায় নেইমার। ২৯ বছর বয়সী তারকার বাড়ানো বল ‍দৌড়ে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বাঁ প্রান্ত দিয়ে ডি বক্সে ঢুকে বাঁ পায়ের আড়াআড়ি শটে লক্ষ্যভেদ করেন রাফিনিয়া। মিনিট দুয়েক পর মুসলেরার সঙ্গে ওয়ান টু ওয়ানে নেইমার সুযোগ নষ্ট না করলে ব্যবধান আরও বাড়াতো সেলেসাওরা।

৩-০ গোলে পিছিয়ে পড়ে খেলা থেকে একরকম ছিটকেই গিয়েছিল উরুগুয়ে। তবে আশার আলো কিছুটা জেগে ওঠে ৭৭ মিনিটে সুয়ারেসের গোলে। আতলেতিকো মাদ্রিদ স্ট্রাইকার বক্সের বেশ খানিকটা বাইরে থেকে নেওয়া ফ্রি কিক থেকে দারুণ এক গোল পেয়েছেন। তবে মিনিট ছয়েক পর আবারও উরুগুয়ের হতাশা। তাদের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন বারবোসা। নেইমারের চমৎকার পাস থেকে হেডে লক্ষ্যভেদ করেন এই স্ট্রাইকার।

এরই সঙ্গে বড় ব্যবধানের জয় দিয়ে অক্টোবরের বিশ্বকাপ বাছাই রাউন্ড শেষ করলো ব্রাজিল। আগের ম্যাচে কলম্বিয়ার সঙ্গে গোলশূন্য ড্রয়ের ধাক্কা কাটিয়ে ছন্দময় ফুটবলের প্রদর্শনীতে কাতার বিশ্বকাপের আরও কাছে চলে গেলো সেলেসাওরা।

মন্তব্য করুন


Link copied