আর্কাইভ  শুক্রবার ● ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ● ১৫ আশ্বিন ১৪২৯
আর্কাইভ   শুক্রবার ● ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২
 
 
শিরোনাম: রুপালি পর্দা- প্রেম, বিয়ে, সন্তান কেন এত অসম্মান?       ঠোঁটের কালচে দাগ দূর হোক, ফিরিয়ে আনুন গোলাপি ভাব       বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে ১০ দিন সকল প্রকার আমদানি রফতানি বন্ধ       বিদেশিদের কাছে বিএনপির অপশাসনের চিত্র তুলে ধরুন: প্রধানমন্ত্রী       পূজাকে বিয়ের প্রস্তাব পাঠিয়েছেন শাকিব      

আলিঙ্গনেই চাঙ্গা হবে শরীর ও মন!

শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, বিকাল ০৫:৪৪

ডেস্ক: শত দুঃখ-কষ্টের মাঝেও মন ভালো করে দিতে পারে একটা উষ্ণ আলিঙ্গন। প্রিয় বন্ধু, প্রেমিক-প্রেমিকা কিংবা স্বামী-স্ত্রীর কাছ থেকে পাওয়া ভালোবাসায় ভরা আলিঙ্গন, তৎক্ষণাৎ মেজাজ ভালো করে দিতে যথেষ্ট কার্যকরী। এটি কারোর প্রতি ভালবাসা ও স্নেহ প্রকাশের মাধ্যমও বটে। গবেষকদের মতে, আলিঙ্গন একটি আনন্দদায়ক অনুভূতি এবং এর ফলে শরীর চাপমুক্ত হয়। বিষণ্নতা, মানসিক চাপ, উত্তেজনা কমে। এছাড়াও, রক্তচাপ কম করতে ও হার্টকে সুস্থ রাখতেও সাহায্য করে আলিঙ্গন। আসুন জেনে নেওয়া যাক, আলিঙ্গনের স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে।

১) আলিঙ্গন মানসিক চাপ দূর করে: বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে যে, একজন বিশ্বস্ত ব্যক্তিকে আলিঙ্গন করা মানসিক চাপ কমাতে সহায়তা করে। বাবা-মা, বন্ধু-বান্ধব কিংবা ভালোবাসার মানুষের কাছ থেকে পাওয়া উষ্ণ আলিঙ্গন, মানসিক শান্তি এনে দিতে পারে। তাছাড়া আলিঙ্গন করলে কর্টিসল নামক স্ট্রেস হরমোনও হ্রাস পায়। 

২) রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী করে তোলে: কাউকে যখন আলিঙ্গন করা হয়, তখন ব্রেস্টবোনের উপর চাপ সৃষ্টি হয়, যা মনকে আবেগপূর্ণ করে তোলে। এটি প্লেক্সাস চক্রকেও সক্রিয় করে, যা থাইমাস গ্রন্থির কার্যকারিতাকে উদ্দীপিত করে। এই গ্রন্থি শরীরে শ্বেত রক্ত কণিকার উৎপাদনকে নিয়ন্ত্রণ করে এবং শরীরকে সুস্থ থাকতে সহায়তা করে।

৩) ক্যালোরি ঝরাতে সহায়তা করে: কাউকে জড়িয়ে ধরলে বা আলিঙ্গন করলে ক্যালোরি ঝরে! হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছেন। আলিঙ্গন ক্যালোরি ঝরাতে অত্যন্ত সহায়ক। ভালোবাসার মানুষকে আলিঙ্গন করলে প্রায় ১২ ক্যালোরি ঝরতে পারে। 

৪) পেশী টান শিথিল করে: আলিঙ্গন ব্যথার বিরুদ্ধে লড়াই করার পাশাপাশি, রক্ত সঞ্চালনকেও উন্নত করতে সহায়তা করে। এমনকি এটি নরম টিস্যুগুলিতে রক্ত প্রবাহ বাড়ায়, যা পেশী টানকে শিথিল করতে সহায়তা করে।

৫) মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য উন্নত করে প্রিয়জনদের আলিঙ্গন করলে অক্সিটোসিন নামক হরমোন নিঃসৃত হয়। এটি স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। তাছাড়া এটি স্নায়ুতন্ত্রকেও উদ্দীপিত করে, যা মানসিক দিক থেকে সক্রিয় থাকা এবং শান্ত থাকার মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে।

৬) রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে: প্রিয়জনদের আলিঙ্গন করলে শরীরে অক্সিটোসিন হরমোনের মাত্রা বৃদ্ধি পায়। এটি শরীর থেকে কর্টিসল নামক স্ট্রেস হরমোন হ্রাস করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যার ফলে রক্তচাপও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

৭) ভয় দূর করতে সহায়তা করে: গবেষণা অনুসারে, স্পর্শ এবং আলিঙ্গন মৃত্যুর উদ্বেগ ক মাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আলিঙ্গন মানুষের মন থেকে অস্তিত্বের ভয় দূর করতেও সহায়তা করে। তাই একাকিত্বের সময় একটি টেডি বিয়ারকে আলিঙ্গন করেলেও নিরাপত্তার অনুভূতি হয়।

৮) মুড ভালো রাখে: ভালোবাসার মানুষকে জড়িয়ে ধরলে সেরোটোনিন হরমোন নিঃসৃত হয়। এই হরমোন মেজাজ ভালো রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। সেরোটোনিনের বর্ধিত মাত্রা আপনার মেজাজকে উন্নত করে এবং মন খুশি রাখে। সূত্র: বোল্ডস্কাই

মন্তব্য করুন


Link copied