আর্কাইভ  শনিবার ● ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ● ৩০ চৈত্র ১৪৩০
আর্কাইভ   শনিবার ● ১৩ এপ্রিল ২০২৪
 width=
 
 width=
 
শিরোনাম: পঞ্চগড়ে দুই মোটরসাইকেল সংঘর্ষ, নিহতের সংখ্যা বেড়ে চার       পঞ্চগড়ে দুই মোটরসাইকেলের মুখোঁমুখি সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৪       পঞ্চগড়ে প্রেমিকের হাতে প্রেমিকা খুন!       নাথান বমের স্ত্রীকে বান্দরবান থেকে লালমনিরহাটে বদলি       দিনাজপুরে ৬ লাখ মুসল্লি’র সমাগমে দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম সর্ববৃহৎ ঈদ জামাত      

 width=
 

কাল নীলফামারীতে ক্ষুদে কবিদের সম্মেলন ও পুরস্কার বিতরণ

শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪, দুপুর ০৪:০৭

স্টাফ রিপোর্টার,নীলফামারী॥ নীলফামারীতে আগামীকাল শনিবার(২ মার্চ/২০২৪) ক্ষুদে কবিদের সম্মেলণ ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে মোড়ক উন্মোচণ করা হবে ওই ক্ষুদে কবিদের লেখা কবিতা ও ছড়ার বইয়ের। 
আয়োজকরা জানান, এবছর দুইটি বই’এর মোড়ক উন্মোচণ করা হবে। ওই কবিতা, ছড়া লিখনে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের দেয়া লেখা থেকে বাছাই করে একটি বইয়ে ছাপানো হয়েছে ৫০০ কবিতা ছড়া ও অন্যটিতে বঙ্গবন্ধুর উপর ২৫০টি ছড়া কবিতা। ছড়া কবিতা লিখনে অংশ নিয়েছেন ২৪ হাজার শিক্ষার্থীরা। 
অনুষ্ঠানের দিন সকাল সাড়ে ১০টায় নীলফামারীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানটি শুরু হবে। পরে বেলুন উড়াবেন অতিথিরা। এরপর একসাথে একই সুরে ২৪ হাজার ক্ষুদে কবিরা ছন্দে ছন্দে কবিতা বলবে। অনুষ্ঠানে নীলফামারী-২ সদর আসনের সংসদ সদস্য সাবেক সংস্কৃতিমন্ত্রী দেশ বরেণ্য সাংস্কৃতিকব্যক্তি আসাদুজ্জামান নূর প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। উদ্বোধক হিসেবে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, কথা সাহিত্যিক ও বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী লেখক মুহম্মদ জাফর ইকবার উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে অভিনয় ও সংগীত শিল্পী ফজরুর রহমান বাবু, কবি ও শিশু কথা সাহিত্যিক আখতার হুসেন, সুজন বড়–য়া, রমজান মাহমুদ উপস্থিত থাকবেন। পাশাপাশি প্রশাসন ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন।
সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূরের পৃষ্ঠোপোষকতায় ২০১৫ সাল থেকে এ কাজটি করে আসছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ভিশন-২০২১,নীলফামারী। ওই কার্যক্রমে পুরাতন কবির সংখ্যা রয়েছে ৫৫ হাজার। সর্বশেষ ২০২০ সালের ৮ মার্চ ক্ষুদে কবি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। করোনা পেন্ডেমিকের কারণে সম্মেলন না করতে পারলেও থেমে ছিল না ছড়া কবিতা লিখনের কাজ। শিশুদের মধ্যে যাগ্রত করা সেই ক্ষুদে কবির প্রতিভা নিয়েই করোনার সময়ও ছড়া কবিতা লিখে গিয়েছেন তারা। 

এদিকে আজ শুক্রবার আয়োজন ঘিরে শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্ত্বরে চলছে সাজ সাজ রব। বিকালে শহীদ মিনার চত্ত্বরে গিয়ে দেখা গেছে অনুষ্ঠান ঘিরে মঞ্চ নির্মাণের শেষ সময়ের ব্যস্ততা। প্রবেশ দ্বারে তোরণ নির্মাণে কাজ করছেন শিল্পীরা। বিভাজন করা হচ্ছিল নারী শিশু ও বিভিন্ন স্তরের দর্শকদের বসার স্থানের। সংগঠনটির প্রধান সমন্বয়কারী ওয়াদুদ রহমান সেখানে দিচ্ছিলিনে সাজ-সজ্জার নির্দেশনা। এসময় তিনি জানান, এলাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে স্বরচিত কবিতা-ছড়া। সেটি থেকে বাছাই করা ৫০০টি কবিতা-ছড়া ছাপানো হয়েছে একটি বইয়ে। সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূরের পৃষ্ঠোপোষকতা, চিন্তা ধারণা ও দিক নিদের্শনায় ২০১৫ সালে শুরু করা হয় এ কাজটি। এসব কবিতা ছড়া লেখায় অংশ নিয়েছে জেলা সদরের ৪৪৫টি বিদ্যালয়ের প্রথম থেকে ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থী। আমরা চাই কবিতা-ছড়া লিখনের মধ্য দিয়ে শিশুদের জ্ঞান বিকাশের। অনুশীলনের মধ্য দিয়ে প্রকৃত মানুষ হিসেবে গড়ে উঠুক তারা। 
অনুষ্ঠান সফল করতে ১৬ হাজার ধারণ ক্ষমতার ওই অনুষ্ঠান স্থলে স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হয়েছে ৫০০ জন। বসার জন্য চেয়ার রাখা হয়েছে ১০ হাজার, ৮টি অস্থায়ী শৌচাগার, ৫টি টিউবওয়েল, পানির বোতল ২ হাজার, সাইকেল স্ট্যান্ড ৩টি ও শিশুর জন্য হালকা নাস্তার ব্যবস্থা।

মন্তব্য করুন


 

Link copied