আর্কাইভ  বুধবার ● ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ● ১৯ মাঘ ১৪২৯
আর্কাইভ   বুধবার ● ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
 width=
 width=
শিরোনাম: হিলি সীমান্তে বিএসএফ-বিজিবি মুখোমুখি        আগামী দুদিনে সারাদেশের তাপমাত্রা কমতে পারে       পাগলের কুড়ালের কোপে প্রাণ গেল ধান ব্যবসায়ীর       বাংলাদেশের কোচ হাথুরুসিংহে       নীলফামারীতে হাজতখানার আসামীদের বসার জন্য কার্পেট উপহার দিলেন মানবিক বিচারক       
 width=

বক্তব্য শেষে ‘জয় বাংলা' বাধ্যতামূলক

বুধবার, ২ মার্চ ২০২২, রাত ০৮:৫২

ডেস্ক রিপোর্ট: ‘জয় বাংলা’কে বাংলাদেশের জাতীয় স্লোগান করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার। সাংবিধানিক পদাধিকারীরা, দেশে ও দেশের বাইরে কর্মরত সরকারি, স্বায়ত্ত্বশাসিত ও সংবিধিবদ্ধ সংস্থার কর্মকর্তা/কর্মচারীরা সব জাতীয় দিবস উদযাপন এবং অন্যান্য রাষ্ট্রীয় ও সরকারি অনুষ্ঠানে বক্তব্যের শেষে ‘জয় বাংলা’ স্লোগান উচ্চারণ করবেন।

এছাড়া সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রাত্যহিক সমাবেশ সমাপ্তির পর এবং সভা-সেমিনারে বক্তব্যের শেষে শিক্ষকরা ও ছাত্রছাত্রীরা ‘জয় বাংলা’ স্লোগান উচ্চারণ করবেন। এ নির্দেশনা অবিলম্বে কার্যকর হবে বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে বুধবার (০২ মার্চ) এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

এতে বলা হয়, মন্ত্রিসভা বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ‘জয় বাংলা’ বাংলাদেশের জাতীয় স্লোগান হবে। ‘সাংবিধানিক পদাধিকারীরা, দেশে ও দেশের বাইরে কর্মরত সরকারি, স্বায়ত্ত্বশাসিত ও সংবিধিবদ্ধ সংস্থার কর্মকর্তা/কর্মচারীরা সব জাতীয় দিবস উদযাপন এবং অন্যান্য রাষ্ট্রীয় ও সরকারি অনুষ্ঠানে বক্তব্যের শেষে ‘জয় বাংলা’ স্লোগান উচ্চারণ করবেন। ’

‘সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রাত্যহিক সমাবেশ সমাপ্তির পর এবং সভা-সেমিনারে বক্তব্যের শেষে শিক্ষকরা ও ছাত্রছাত্রীরা ‘জয় বাংলা’ স্লোগান উচ্চারণ করবেন। এ নির্দেশনা অবিলম্বে কার্যকর হবে বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে।

উচ্চ আদালতের নির্দেশনায় গত ২০ ফেব্রুয়ারি মন্ত্রিসভা বৈঠকে ‘জয় বাংলা’কে জাতীয় স্লোগান করার সিদ্ধান্ত নেয় মন্ত্রিসভা। ওই দিন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘জয় বাংলা’কে জাতীয় স্লোগান ঘোষণা দিয়ে সার্কুলার জারি করা হবে। ২০২০ সালের হাই কোর্টের একটি রায় রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘জয় বাংলা’কে জাতীয় স্লোগান হিসেবে বিবেচনা করতে হবে, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আজকে কেবিনেটে আলাপের পর সিদ্ধান্ত হয়েছে যে, জয় বাংলাকে কেবিনেট থেকে একটা সার্কুলার দিয়ে জাতীয় স্লোগান হিসেবে প্রচার করতে হবে। অফিসিয়াল নোটিফিকেশনের মাধ্যমে। কোর্টের ইনস্ট্রাকশন নিয়ে আমরা নোটিফিকেশন দিয়ে দেব।

মন্তব্য করুন


Link copied