আর্কাইভ  রবিবার ● ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ● ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০
আর্কাইভ   রবিবার ● ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
 width=
 
 width=
 
শিরোনাম: তিস্তা ইউনিভার্সিটিতে সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত       সংরক্ষিত আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হলেন ৫০ নারী       দিনাজপুরের সাবেক এমপি আখতারুজ্জামান জেল-হাজতে       সরকারি মাল দরিয়ায় ঢালবেন না: প্রধানমন্ত্রী       জাপা গৃহপালিত রাজনৈতিক দল, স্বীকার করলেন কাদের      

নির্বাচনকে অর্থবহ করতে সাংবাদিকের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ 

বুধবার, ২৯ নভেম্বর ২০২৩, রাত ০৮:৩৬

ঢাকায় রংপুরের আট জেলার সাংবাদিকদের তিনদিন ব্যাপী নির্বাচন বিষয়ক রিপোর্টিং প্রশিক্ষন 

স্টাফরিপোর্টার,নীলফামারী॥ নির্বাচনে প্রিজাইডিং অফিসার ও পোলিং এজেন্টদের পাশাপাশি সাংবাদিকদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। কারণ নির্বাচনকে অর্থবহ করতে এই তিনের সমন্বয়ে কাজ করা অপরিহার্য। সোমবার (২৭ নভেম্বর) বিকেলে পিআইবির (প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ) সেমিনার কক্ষে রংপুর বিভাগের আট জেলার সাংবাদিকদের তিন দিনব্যাপী নির্বাচন বিষয়ক রিপোর্টিং প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন সাবেক সচিব আবু আলম মো. শহিদ খান। 
এসময় তিনি পরিবেশে পরিস্থিতি বিবেচনা করে সাংবাদিকদের প্রতিবেদন তৈরি ও কাভারেজের বিষয়টিকে প্রাধান্য দিতে হবে উল্লেখ করে বলেন, সাংবাদিকদের প্রতিবেদনই পারে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকান্ডে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে। নির্বাচনকালীন সময়ে গণমাধ্যমকর্মীদের ইতিবাচক ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। সাংবাদিকরা সমাজের তৃতীয় চক্ষু। তাই সঠিক তথ্য, শিরোনাম ও ছবি ভিডিও মাধ্যমে দেশ ও বিশ্বের জনগণের কাছে সঠিক নিউজ তুলে ধরবেন। যেনো কোনো ধরণের গুজব বা ভুল নিউজের কারণে জনসাধারণ বিভ্রান্তিত না হয়। 
সাবেক সচিব বলেন, চ্যালেঞ্জ নিয়েই গণমাধ্যমকর্মীদের আরও বেশি আস্থার জায়গা তৈরি করা করতে হবে। প্রশিক্ষণ মানুষের দক্ষতা বৃদ্ধি করে। নির্বাচন বিষয়ক রিপোর্টিং নিয়ে এই প্রশিক্ষণ সময়োপযোগী। সাংবাদিকদের কাছে সাধারণ মানুষের অনেক বেশি প্রত্যাশা। সাংবাদিকদের লেখুনিতে গণতন্ত্র, নির্বাচন, সম্ভাবনা, সমস্যা, উন্নয়নসহ সমাজ ও দেশের সবদিক উঠে আসে। এ কারণে গণমাধ্যমকর্মীদের দূরদর্শিতার পরিচয় দিতে হবে।  
অনুষ্ঠানে সভাপ্রধান পিআইবির মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ বলেন, নির্বাচনকালীন সময়ে প্রতিবেদন তৈরির সময় সংবিধান, নির্বাচনী আচরণবিধি ও অন্যান্য বিষয় সাংবাদিকরা যেন মেনে চলেন। এছাড়া নির্বাচনী প্রতিবেদন তৈরির ক্ষেত্রে মাঠ পর্যায়ে কাজ করার কথাও উল্লেখ করেন তিনি বলেন, নির্বাচনের সময় একটি নিউজের শিরোনাম খুবই গুরুত্বপূর্ণ। জনগণ শিরোনাম পড়েই আগে বিভ্রান্তিত হবে। তাই বিভ্রান্তিকর কোনো ধরণের সংবাদ বা প্রতিবেদন না করার জন্য আহবান জানান তিনি। 
পিআইবির মহাপরিচালক আরো বলেন, সাংবাদিকতার মানোন্নয়নে সরকার বিভিন্নভাবে কাজ করে যাচ্ছে। প্রশিক্ষণ তারই একটি অংশ। আমরা প্রশিক্ষিত সাংবাদিকদের মাধ্যমে সমাজ ও দেশকে এগিয়ে নিতে চাই। সাংবাদিকরা প্রশিক্ষণ গ্রহণের মাধ্যমে দক্ষতা বৃদ্ধির সাথে সাথে নিজের পেশাগত দায়িত্বের ক্ষেত্রে আচরণ ও নীতি-নৈতিকতা সম্পর্কে বেশি সচেতন হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে। 
পরে প্রশিক্ষণে অংশ নেওয়া প্রশিক্ষণার্থীদের হাতে সনদ তুলে দেন সাবেক সচিব আবু আলম মো. শহিদ খান ও মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ। প্রশিক্ষণে রংপুর বিভাগের আট জেলার ২৮ জন সাংবাদিক অংশগ্রহণ করেন। এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতে পিআইবির সম্পাদনায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে লেখা দুর্লভ বেশ কয়েকটি বই উপহার হিসেবে প্রধান অতিথির হাতে তুলে দেন পিআইবি পরিচালক। 
এসময় অনুষ্ঠানে পিআইবির পরিচালক (অধ্যয়ন ও প্রশিক্ষণ) চলতি দায়িত্ব শেখ মজলিশ ফুয়াদ উপস্থিত ছিলেন। 
অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন প্রশিক্ষণ সমন্বয়কারী পিআইবির প্রতিবেদক এম এম নাজমুল হাসান। 
তিন দিনের এ প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষক ও রিসোর্সপারসন ছিলেন- নির্বাচন কমিশনার আনিসুর রহমান, নির্বাচন কমিশনের সাবেক অতিরিক্ত সচিব জেসমীন টুলী, গ্লোবাল টিভির সিইও সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, টিবিএন২৪ টিভির চিফ এডিটর নাজমুল আশরাফ ও পিআইবির সহকারী প্রশিক্ষক জিলহাজ উদ্দিন নিপুন প্রমুখ। 

মন্তব্য করুন


 

Link copied